Wednesday, 18 May 2022 | English

রোগ মুক্তিতে করলা - করলার খাদ্যগুন ও উপকারিতা

Dr. Abdul Hannan Mia 08-07-2021 08:17:58 am, Updated 4 months ago ঔষধি , শাক সবজি 0 99
রোগ মুক্তিতে করলা - করলার খাদ্যগুন ও উপকারিতা

আমরা প্রতিদিন নানাবিধ খাবার খেয়ে থাকি তার মধ্যে অনেক খাবার আছে যাতে রয়েছে ঔষধি গুনাগুন । খাবারে যদি এ গুনগুলাে আমাদের জানা থাকে তবে খুব সহজেই খাবার গুলো আমরা রোগমুক্তি বা রােগ নিয়ন্ত্রনে ব্যবহার করতে পারে।

করলা সবজিটির প্রতি ১০০ গ্রামে ২০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম থাকে যা দৈনন্দিন চাহিদার অনেকটাই মেটাতে সক্ষম ।


ডায়াবেটিস

করলায় ইনসুলিন রাইক ফ্যাক্টর অর্থাৎ প্ল্যান্ট ইনসুলিন থাকে যা ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। বিশেষ করে টাইপ -2 ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য করলা বেশ উপকারী।

পাইলস

করলা পাতার রস সকালে খালি পেটে খেলে পাইলস রোগে ভালাে ফল দেয়।

সােরিয়াসিস

এক কাপ করলার রসের সঙ্গে এক চামচ লেবুর রস খালি পেঠে একটানা ছয় মাস খেলে চুলকানি কমে যায়।

হাপানি রােগ

করলা গাছের মূল এ ধরনের রােগে আক্রান্ত গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে। করলা গাছের মূলের পেষ্ট এক চা চামচ সমপরিমাণ মধু ও তুলসী পাতার রসের সঙ্গে মিশিয়ে টানা এক মাস খেলে অ্যাজমা ব্রহ্কাইটিস ভালাে হয়।

কলেরা

করলা পাতার রস কলেরা আক্রান্ত ব্যাক্তি খেলে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন। তবে কতটুকু খাবেন তা ডাক্তার ও ডায়েটিশিয়ানের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি

করলা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। বিভিন্ন সংক্রমণ এবং রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করতে প্রতিদিন করলা সেদ্ধ পানি সেবন করতে পারেন। করলায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে, যাতে শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট আছে।

কিডনিতে পাথর

কিডনিতে পাথর একটি অত্যন্ত বেদনাদায়ক চিকিৎসা। করলা কিডনিতে পাথরগুলির দেহ প্রাকৃতিকভাবে ভেঙে ফেলাতে সাহায্য করতে পারে। করলা উচ্চ অ্যাসিড হ্রাস করে।

একটি স্বাস্থ্যকর চা তৈরি করতে পানির সাথে তিক্ত করলার গুড়া মিশিয়ে দিন। এই চা একটি বাদামি স্বাদযুক্ত এবং আশ্চর্যজনকভাবে কোন মিষ্টির প্রয়োজন হয় না।

কোলেস্টেরল কমায়

করলা দিয়ে বিপজ্জনক কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সহায়তা করে। কোলেস্টেরল হ্রাস হৃদরোগের আক্রমণ, হৃদরোগ এবং স্ট্রোককে উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করে।

অতিরিক্ত সুবিধাটি হ'ল এইসব স্বাস্থ্য ঝুঁকিগুলি প্রতিরোধ করতে করলা শরীরের সাথে প্রাকৃতিক ভাবে কাজ করে ।

ত্বকের সুরক্ষায়

করলা থেকে তৈরি খাবার বা রস ত্বকের উপকার করে। যদি নিয়মিত খাওয়া হয়, করলা ত্বকে উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে। তাছাড়া করলাকে ব্রণ, সোরিয়াসিস, এবং একজিমা চিকিৎসার সহায়ক বলা হয়।।

ত্বাকের সমস্যার জন্য বা আরও সুন্দর ত্বকের জন্য করলার স্যুপ খাওয়া চেষ্টা করুন। একটি অতিরিক্ত সুবিধা হ'ল করলা একটি রক্ত-বিশুদ্ধকারী এজেন্ট।

ওজন

করলা ওজন কমালে বা ওজন ধরে রাখতে সাহায্যে করে। টাইপ ২ ডায়াবেটিসের বিরুদ্ধে সহায়তা করে এমন একই বৈশিষ্ট্যগুলি স্বাস্থ্যের ওজন হ্রাস এবং রক্ষণাবেক্ষণে সহায়তা করে। 

করলা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ, যা শরীর থেকে টক্সিনগুলি বের করে দেয় যা ওজন বাড়িয়ে তোলে। করলার রস নিয়মিত সেবন করা ওজন হ্রাসে কার্যকরভাবে প্রমাণিত হয়েছে।

ব্রণ

রক্ত শুদ্ধ করার এবং বিষমুক্ত করার জন্য করলা খুব ভাল এবং এটি ব্রণ হ্রাস এবং অভ্যন্তরীণভাবে শরীর পরিষ্কার করবে।

ডাঃ মোঃ আঃ হান্নান মিয়া (বি,এ)

ডি.এইচ.এম.এস (ঢাকা)


অহনা ভিলা, ধানুয়া কলেজ পাড়া, শিবপুর, নরসিংদী


সিংহশ্রী (বট তলা) চৌরাস্তা, ফালুমাস্টারের বাড়ি, কাপাসিয়া, গাজীপুর।

মোবাইলঃ ০১৭৩৯-৬৮২৬৯২, অথবা বার্তা পাঠান

(প্রতি শনিবার যোগাযোগ সাপেক্ষে রোগী দেখা হয়)

Share this post
More
Dr. Abdul Hannan Mia
প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ ভালো।
Comments
হোমিওপ্যাথিক(35), শিশু রোগ(3), প্রস্রাব(3), চর্মরোগ(3), ডায়াবেটিস(2), পরিচিত রোগ(2), দাঁত(2), উচ্চ রক্তচাপ(2), গ্যাস্ট্রিক(2), স্ত্রীরোগ(2), এলার্জি(2), হোমিওপ্যাথ শিক্ষার্থী(2), হাড় ক্ষয়(2), হাড় ব্যাথা(2), diabetes(1), ভিটামিন(1), হোমিওপ্যাথিক ও প্রাকৃতিক(1), রাসূল (সাঃ) এর বানী(1), ঘুমানোর পূর্বে পাঁচটি আমল(1), ঘুমানোর পূর্বে রাসূল (সাঃ) এর পাঁচটি আমল(1), ইসলাম ধর্ম(1), খেজুর(1), ঔষধি ফল(1), আকস্মিক পীড়া, দূর্ঘটনায় হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা(1), দূর্ঘটনায় হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা(1), হৃদরোগ(1), গর্ভবতী(1), প্রাথমিক চিকিৎসা(1), মিথ্যা সন্দেহ(1), পারিবারিক ঝগড়া বা দাম্পত্য কলহ (স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া)(1), গলগন্ড(1), বিছানায় প্রস্রাব(1), ঘন ঘন প্রস্রাবের হোমিওপ্যাথিক ঔষধ(1), অজ্ঞান(1), ব্রন(1), হোমিওপ্যাথিক ঔষধ খাওয়ার ও সংরক্ষনের নিয়ম(1), প্রাকৃতিক(1), ????(1), বন্ধ্যাত্ব(1), জন্মনিয়ন্ত্রণ / গর্ভনিরোধ(1), ব্যাথা(1), কোমড় / মেরুদন্ড(1), হোমিওপ্যাথি সর্ম্পকে ভ্রান্ত ধারনা, কুসংস্কার ও কিছু প্রশ্নোত্তর(1), বইয়ের তালিকা(1), প্যারালাইসিস বা পক্ষাঘাত(1), paralysis(1), হার্ট টনিক(1), বেবী টনিক(1), অস্টিওপোরোসিস(1), পড়ালেখা/পাঠে মনোযোগ(1),