Sunday, 19 May 2024 | English

কিডনি ভালো রাখার উপায়, ঘরোয়া চিকিৎসা ও প্রয়োজনীয় খাদ্যসমূহ

Dr. Abdul Hannan Mia 2021-04-08T20:27:15+06:00 , Updated: 2 years ago পরিচিত রোগ , কিডনী 0 1447
কিডনি ভালো রাখার উপায়, ঘরোয়া চিকিৎসা ও প্রয়োজনীয় খাদ্যসমূহ

আজকে আমরা জানব কিডনি ভালো রাখার উপায়, কিডনি রোগের ঘরোয়া চিকিৎসা ও কিডনি ভালো রাখার প্রয়োজনীয় খাদ্যসমূহ এবং এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য ও পরামর্শ ।


 

পিয়াজ

কিডনি ভালো রাখার একটি অন্যতম উপাদান হলো পিয়াজ। পেঁয়াজ ফ্ল্যাভোনয়েড সমৃদ্ধ, যা রক্তের চর্বি দূর করে থাকে। এ ছাড়া এতে কোয়ারসেটিন নামক অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট আছে যা কিডনির জন্য ক্ষতিকারক ফ্রি র‌্যাডিক্যালগুলোকে বাধা দান করে, কিডনি পরিশোধনে সহায়তা করে এবং মূত্রনালির সংক্রমণ রোধ করে। পিয়াজে পটাশিয়াম, প্রোটিন আছে যা কিডনির জন্য অনেক বেশি উপকারী। 

রসুন

রসুন ইনফেমেটরি এবং কোলেস্টরল কমাতে অনেক বেশি কার্যকরী। এতে আছে এলিসিন নামক আ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান আছে যা দেহের প্রদাহ দূর করে থাকে। মানবদেহে অতিমাত্রায় বর্জ্য পদার্থ তৈরিতে বাধা দান করে কিডনি সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

তবে রান্না করে খেলে এর অ্যান্ট অক্সিডেন্ট পাওয়া যায় না। ভালো হয় সকালে খালি পেটে কাঁচা রসুন খাওয়া, এটি হার্ট ভালো রাখার পাশাপাশি কিডনিকেও ভালো রাখে।

আপেল 

প্রচলিত আছে প্রতিদিন একটা আপেল খান আর ডাক্তার থেকে দূরে রাখুন। কথাটা কিডনির ক্ষেত্রেও সত্য। আপেল উচ্চ ফাইবারযুক্ত খাবার, এতে পলিফিনল নামের আ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি আছে যা বাজে কোলেস্টেরল দূর করে হৃদরো প্রতিরোধ করে থাকে এবং পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ আছে, যা কিডনির স্বাভাবিক কার্যক্রম বজায় রাখতে সাহায্য করে।

যাঁদের কিডনিতে পাথরজনিত সমস্যা রয়েছে তাঁরা নিয়মিত আপেল খেলে সেই পাথর নরম এবং ছোট হয়ে শরীর থেকে বের হয়ে যায়। এ ছাড়া এটি ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়। আপেল কোলেস্টেরল কমাতে, কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধে, হৃদরোগ থেকে রক্ষা করতে এবং ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে পরিচিত। 

বাঁধাকপি 

বাঁধাকপি কিডনির ফাংশন উন্নত করে থাকে। এতে আছে ভিটামিন বি৬,সি,কে, ফাইবার, ফলিক আ্যাসিড। এটি শরীরে পটাশিয়ামের মাত্রা বজায় রাখতে সাহায্য করে। বাঁধাকপিতে বিদ্যমান ফাইবার পাচনতন্ত্রকে সুস্থ রাখে নিয়মিত মলত্যাগকে সাহায্যে করে।

লাল ক্যাপসিকাম

লাল ক্যাপসিকামে কম পরিমানে পটাশিয়াম আছে যা কিডনি সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এতে ভিটামিন সি,এ, ভিটমিন বি৬, ফলিক এসিড ও ফাইবার রয়েছে।

লেবুর রস

লেবুতে যে এসিড উপাদান আছে তা কিডনিতে জমা হওয়া পাথর ভাঙ্গতে বেশ কার্যকর। লেবুতে যে সাইট্রাস উপাদান আছে তা কিডনিতে থাকা ক্রিস্টালদের পরস্পরের জোড়া লাগতে বাধা দেয়।

আদা

কিডনিকে আরও কার্যকরী করতে আদা খাওয়া বুদ্ধিমানের কাজ। কারণ কিডনিকে ভাল রাখতে আদা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আদা কিডনিতে রক্তের চলাচল বাড়িয়ে কিডনিকে সচল ও সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

এর ফলে কিডনির কর্মক্ষমতা আরও বেড়ে যায়। যদি নিয়মিত কাঁচা আদা, আদা চা , আদার গুড়া কিংবা জুস করে খাওয়া যায় তাহলে তা কিডনি পরিষ্কারে ভূমিকা রাখে ও কিডনি সুস্থ থাকে।

লাল আঙ্গু

লাল আঙ্গুরে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ফ্লাভনয়েড, যা আপনার কিডনিকে রাখবে সদা তরুণ। এটি রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক রাখে এবং ক্যান্সার প্রতিরোধেও সাহায্য করে।

মিষ্টি আলু

মিষ্টি আলুতে পটাশিয়ামের মতো ভিটামিন এবং খনিজ পদার্থ রয়েছে, যা শরীরে সোডিয়ামের মাত্রা ভারসাম্য বজায় রাখতে এবং কিডনিতে  খারাপ প্রভাব কমাতে সাহায্য করতে পারে।

ডাঃ মোঃ আঃ হান্নান মিয়া (বি,এ)

ডি.এইচ.এম.এস (ঢাকা)


অহনা ভিলা, ধানুয়া কলেজ পাড়া, শিবপুর, নরসিংদী

রোগী দেখার সময়ঃ শুক্রবার বিকাল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।


বাগদী প্রাইমারী স্কুলের পূর্ব পার্শ্বে, আব্দুল বাতেনের বাড়ি, কালিগঞ্জ, গাজীপুর

রোগী দেখার সময় বিকাল ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

মোবাইলঃ ০১৭৩৯-৬৮২৬৯২, অথবা বার্তা পাঠান

(প্রতি শনিবার যোগাযোগ সাপেক্ষে রোগী দেখা হয়)

Share this post
More
Dr. Abdul Hannan Mia
প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ ভালো।
Recommended for you
Comments